ALKALINE WATER JUG(barcode: 020)

Measurement: 100

Price: 5000.00 4,000.00 Tk.

Redeem Point: 1,000.00

Availability: In Stock

QUICK OVERVIEW:

Change Your Water, Improved Your Life.



সম্মানিত সুধী,

আপনার উপর শান্তি বর্ষিত হোক।

পানির অপর নাম জীবন, এ কথা বহুকাল থেকেই প্রচলিত, আসলে সকল পানির অপর নাম কি জীবন???

মানব দেহের অনেক উপাদানের মধ্যে গুরুত্বপূর্ন একটা উপদান হচ্ছে পানি। মানবদেহে প্রায় ৭০-৮০ বাগ পানি বিদ্যমান রয়েছ। তাই মানবদেহের জন্য পানির গুরুত্ব অপরিসীম।

প্রতিনিয়ত পানি মানবদেহে দুটি কাজ করে থাকেঃ-

০১) পানি মানবদেহে টক্সিনগুলো বিভিন্ন ভাবে বাহিরে বের করে দিতে সহযোগিতা করে এবং শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখে ।

০২) পানি নিউট্রিশন এবং অক্সিজেন মানব দেহের প্রতিটি (সেল ) কোষে পৌছে দিতে সহযোগিতা করে।

মানুষ মূলত অসুস্থ হয় না, হয় তৃষ্ণার্থ  এবং ক্ষুদার্থ। তৃষ্ণার্থ হলে পানি পান করি ক্ষুধা পেলে আহার করি, এই পানি ও আহার থেকেই সকল রোগের উৎপত্তি । ১৯৩১ সালে ক্যান্সার ডিসকভারীর জন্য Dr. Otto Heinrich Warburg Nobel পুরস্কারে সম্মানিত হন। তিনি তার No Diseases including Cancer can exist in an alkaline environment অর্থাৎ কোন রোগ জীবানু এমনকি ক্যান্সারও এলকালাইন পরিবেশে বাস করতে পারে না।

Alkaline Water এর এক বিশেষ পদ্ধতিতে পানির মনিকুল ভেঙ্গে সুক্ষ থেকে অতিসুক্ষাতি সুক্ষ করে পানির PH মান বাড়ানো হয়।
পানির মনিকুল অতি সুক্ষ হওয়ার ফলে মানব দেহে ৮০ ভাগ শোষন করতে সক্ষম হয়, সেখানে এসিডিক পানির শোষন ক্ষমতা মাত্র ১০-১৫ ভাগ। দেহের কিছু ক্রিটিক্যাল নিউট্রিন্ট দেহকোষে পৌছে দেওয়ার কাজটি কেবল এ্যালকালাইন পানিই করতে পারে । এক স্বাস্থ্য জরীপে পাওয়া গেছে, সারা বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু জীবন যাপনকারী ব্যাক্তিদের সকলেই এ্যালকালাইন পানি পানে অভ্যস্থ ছিলেন।
বিস্তারিত জানতে alkaline water benefits in bangla লিখে Youtube থেকে জানতে পারেন বিস্তারিত চলে আসবে। এবং ওয়েব সাইট ভিজিট করতে পারেনঃ- www.healthyra.com
Rheumatoid arthritis (গেটে বাতের) একমাত্র চিকিৎসা এ্যালকালাইন পানি। মানব দেহে রক্তের পিএইচ মান দৃঢ়ভাবে এনবিএসপি: 7.35 থেকে 7.45 এর মধ্যে নিয়ন্ত্রিত রাখা হয়, যা দেহকে নিজে থেকেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ন্ত্রণ করে।

আপনি টেকট্যুর বাংলাদেশ-থেকে এ্যালকালাইন ওয়াটার পণ্য ব্যবহার করবেন কেন?

০১) 
এ্যালকালাইন (পিএইচ=8.5-9.5) এসিডিক বর্জ্য দেহ থেকে বের করে দেয়।

০২) এন্টি অক্সিডেন্ট ফ্রি-রেডিক্যাল ধ্বংস করে ফলে দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং ক্যান্সার,          দ্রুত বার্ধক্য ও  অন্যান্য (Degenerative) রোগ সহজে আক্রমন করতে পারবে না।

০৩) এ্যালকালাইন পানির কনাগুচ্ছ খুব ছোট থাকায় দ্রুত গেহের সাথে মিশে যায় এবং দেহের চর্বি ভেঙ্গে          পুষ্টি, NBSP ও অক্সিজেন সরবরাহে সহযোগীতা করে। ফলে মানব দেহ হয় দিন দিন সতেজ।

০৪) প্রাকৃতিক খনিজ পদার্থ এবং আয়রণ পাওয়া যায় আর খুব সহজে দেহ শোষন করে ফেলে। যার জন্যে,        বসয় বৃদ্ধিজনিত অসুস্থতা থেকে রক্ষা পাওয়া যায়।

০৫) সাধারণ পানির চেয়ে তিন গুন বেশি কার্যকারী এবং স্বাস্থ্যকর ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, মেগনেসিয়াম           যুক্ত।

বিশেষজ্ঞ ও বিজ্ঞানীদের অনুসন্ধানের দাবীতে নিম্নে এ্যালকালাইন পানির কিচু গুরুত্বপূর্ণ ২৫ (পঁচিশ) টি স্বাস্থ্য সুবিধা তুলে ধরা হলোঃ-

(0১) ক্যান্সার (০২) দ্রুত বার্ধক্য (০৩) উচ্চ রক্তচাপ (০৪) গ্যাসিট্রক (০৫) হার্ট এ্যাটাক (০৬) হাড় ক্ষয় (০৭) বাত-ব্যাথা (০৮) সন্ধি প্রদাহ (০৯) জন্ডিস (১০) কোষ্ঠকাঠিন্য (১১) রক্তনালী শক্ত হয়ে যাওয়া  আর্টারিও স্কেলেরোসিস (১২) অতিরিক্ত মেদ বহুলতা (১৩) একজিমা (১৪) ব্রন (১৫) এ্যাজমা বা হাপানী (১৬) কিডনী পাথর (১৭) পিত্ত পাথর (১৮) হজমে গোলযোগ (১৯) ঘন ঘন ঠান্ডা লাগা (২০) শরীরিক অবসাদ/ক্লান্তি (২০) অতিরিক্ত কোলেষ্টরেল (২১) মাসিকের ব্যাথা বা অনিয়মিত মাসিক (২২) শরীরের দুর্গন্ধ (২৩) অনিদ্রা (২৪) ডায়াবেটিকস (২৫) যৌন সমস্যা সহ ইত্যাদি রোগসমূহ নিরাময়ে সাহায্য করে।

জেনে রাখুন দুষিত পানি পান করে এশিয়ার গুলোতে প্রতি বছর ছয় লক্ষ মানুষ মারা যায়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) এর জরীপ মতে মানব দেহের অসুখের শতকরা ৮০ বাগ উৎসই হচ্ছে দুষিত পানি এবং প্রতি দিন বিশ্বে ৩০ হাজার মানুষের মৃত্যুর কারণ দুষিত পানি।

আপনার কিডনি, লিবার, জন্ডিস, রক্তচাপ, ত্বকের ক্যান্সার, ডায়রিয়া, টাইফয়েড, রক্ত আমশায় ইত্যাদি রুগের প্রধান উৎস পানিবাহিত জীবানু থেকে হতে পারে।
শুধু পান করার পানিই নয়, দৈনন্দিন সব রকমের ব্যবহারিক পানিও বিশুদ্ধ হওয়া অতীব প্রয়োজন। উন্নত বিশ্বের সকল স্বাস্থ্যসচেতন নারী-পুরুষগন তাদের দৈনন্দিন কাজের পানি বিশুদ্ধ ও জীবানু মুক্ত করে ব্যবহার করেন।

পানি ফুটিয়ে খাওয়াকি সম্পূর্ণ ভাবে নিরাপদ?
নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় পানি ফুটালে কিছু ব্যাকটেরিয়া মারা যায় বটে কিন্তু দ্রবীভূত বিভিন্ন জৈব ও অজৈব পদার্থ কখনো দুরীভুত বা অপসারীত হয় না। বরং অতি প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের পরিমান হ্রাস পায় এবং পানির টিডিএস-এর পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। ভাইরাসসহ বেশ কিছু জীবানু তাপমাত্রায় আত্মরক্ষমুলক সিস্ট গঠন করে। অনুকুল পরিবেশ সিস্ট ভেঙ্গে শরীরের ক্ষতিসাধন করে।

 

এই ‍এ্যালকালাইন পণ্যঃ-
পানিতে অবস্থিত দুর্গন্ধ, ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস, ময়লা, কাদা, আয়রণ, বিষাক্ত সীসা ও মল-মুত্রসহ সকল প্রকার ক্ষতিকারক উপাদান দুর করে পানির প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে।

( বিশুদ্ধ বা এ্যালকালাইন পানিই হোক আপনার নগর জীবনের স্বাস্থ্য সুরক্ষার প্রতীক )

পরিবারের কল্যাণে নামি-দামি টিভি, ফ্রিজ-এর পাশাপাশি, আপনার এবং আপনার শিশুর স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য  একটি ওয়াটার ট্রিটমেন্ট সিস্টেম ব্যবহার করুন স্ব-পরিবারে সুস্থ্য থাকুন।


পণ্য ব্যবহারের নিয়মাবলীঃ-
0১) সামান্য ডিটারজেন্ট ও কুসুম গরম পানি দিয়ে পরিস্কার করতে হবে।

0২) সুর্যরশ্মি থেকে রক্ষা করতে হবে।

0৩) ৩৩ঃ-২২ঃ ফারেনহাইট তাপমাত্রায় রাখুন।

0৪)  ভাল ফলাফলের জন্য প্রতি মাসে ২ বার ফিল্টারের কাটিজ পরিস্কার করুন।

0৫) খাবারের ৩০ মিনিট পূর্বে পানি পান করুন।

বিঃদ্রঃ বিশেষ ফলাফলের জন্য একজন সুস্থ্য মানুষ কে প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪- মিলিঃ এ্যালকালাইন পানি তার শরিরের প্রতি জেনি ওজনের বিপরীতে পান করা উচিত।

#গুডজার্নি টেকট্যুর।